[রিজার্ভ ব্যাঙ্কের এক উচ্চপদস্থ ব্যক্তির গলায় গলবন্ধনীর পুরু দাগ দেখে বাংলার এক ছা - পোষা সিভিল সারভেন্ট জিজ্ঞাসিলেন ]
-মশায় , ওটা কি ? মানে কি করে ?
-কোথায়, কোনটা কি?
( প্রশ্নকর্তা চোখ ও হাতের সমন্বয়ে গলার দিকে ইঙ্গিত করতে)
ওহ ! এটা ? এটা একটা স্লট । সরকারি (এবং নিজের জন্যে দরকারি) পোর্টফলিও পেলে টেলে বকলস পরতে হয় ! কেন আপনারা বকলস পরেন নি ?
- আমরা ? না স্যার এখানে পরতে টরতে লাগে না ওসব ! এখানে আছেন মানেই আপনি পোষা !
- তাই নাকি? যদি না হই ?
- তবে ছাড়িয়ে নেবে খোসা !
- কে?
- সে বলা যাবে না স্যার । আমাদের মাতৃতান্ত্রিক রাজ্যে মায়ের নাম নেওয়া বারণ ।
-ওহ ! আমাদের পিতৃতান্ত্রিক সেট আপ-এ এসব খোসা ছাড়ানোর পালা নেই । রোম্যান্টিকতা কম।শুধু রাগিয়ে দিলে গুঁতিয়ে দেয় । শুধু শুধু চেয়ার বদল , মামলা , মোকদ্দমা, জেল-হাজত, সি বি আই – আই টি -র হানা এইসব হ্যাঙ্গাম আর কি! কয়েক লাখি মেডিক্লেম – এর ভরসাতে তাই ঝুঁকি টুকি আর নিই না ।
- বাঃ বাঃ । তো মশায় আপনি এর আগে কোথাও ছিলেন টিলেন নাকি ? হোমরাচোমরা কোনও চেয়ারে? মানে বকলসটা কদিন পুরনো হলে তবেই তো কড়া করে দাগ টাগ পড়ে ।
- না না। আমার ব্রিডটাই তো ডোমেস্টিক ভাই । জানেন নিশ্চয়ই , ল্যামার্ক ! ল্যামার্ক !
- ল্যান্ডমার্ক ?
- না না ! ল্যামার্ক।এই গোটা ব্যপারটাই হল গিয়ে অর্জিত গুণের বংশানুসরণ ।
- উর্জিত গুণের বংশানুসরণ ? ওয়াও স্যার । পুরোটা বুঝছিনা , ট্যান যাচ্ছে, কিন্তু শিওরলি উচ্চ বংশের ব্যাপার । সেটা বুঝে গেছি ! দারুণ ! দারুণ !
- আরে , আরে উরজিত নয় ! অর্জিত ! অর্জিত !
- হ্যাঁ স্যার বুঝে গেছি
-কি বুঝেছ ? কিচ্ছু বোঝনি ।
- বুঝেছি স্যার, বুঝেছি । আপনার এই গুণ …
-হ্যাঁ। তো ?
- যাহা কষ্টার্জিত নয় !

একটি কাল্পনিক কথোপকথন
  • 0.00 / 5 5
0 votes, 0.00 avg. rating (0% score)

Comments

comments