‘না-ঘুম’ অবস্থা সমস্যা নাও হতে পারে । আবার সমস্যা না হওয়াটাও অস্বাভাবিক । বসন্তে কোকিল ডাকছে না । এটা তো স্বাভাবিক –ই । সমস্যার শুরুয়াত হয়ে যায় সকাল থেকেই । কিন্তু এই সকালে কোনভাবেই সমস্যা ছিল না । পুরোটা রাত জেগে জানলা দিয়ে , ভোর থেকে সকাল হয়ে উঠবার ট্রান্সফরমেশন কি দেখেই অনুভব করা যায় । না থাক , ব্যাপারটা অন্য ভাবে ভাবা যাক । ভোরে ঘুম থেকে উঠে , সকাল হওয়া দেখা আবার সারারাত না ঘুমিয়ে , ভোরের সকালে রুপান্তর — এই দুই দেখায় অনুভবের ব্যতিচার অবশ্যই আছে । ভালো লাগা বা না লাগার কোনও একটা অনুক্ষণ হটাত্‍ বদলে যায় এই ব্যতিচারে । পাল্লা ভারী কার দিকে ?

‘না-ঘুম’
  • 0.00 / 5 5
0 votes, 0.00 avg. rating (0% score)

Comments

comments