স্থান : বাংলাদেশের কক্সবাজারে এক নামী দামী হোটেলের স্যুট
কাল : বিয়ের পরে হনিমুন
পাত্র( ও পাত্রী ) : ৪৭ বছর বয়েসের নাজমুল হুদা 'খোকন' ও তার ২১ বছরের কচি (ও নতুন) বউ মেহেরুন্নিস্সা 'পদ্ম' (খোকন আদর করে ডাকে ফদ্দ )
(সন্ধ্যে বেলা ব্যালকনিতে বসে চা সহযোগে সামনের sea ভিউ দেখতে দেখতে .. )
খোকন : আহ বিউটিফুল….ডার্লিং তোমার কেমন লাগতাসে?
ফদ্দ : আফনে যে কি কন না….আফনে ওসব করলেন কই যে লাগব ?
খোকন : আরে না না , আমি সামনের ছিনারিটার কথা কইতাসি। ওসব তো রাতে করনের বিষয়বস্তু….হেঃ হেঃ।
ফদ্দ : ওহ ছুরি (sorry), বোজনে মিচটেক হইয়া গেসে ….
খোকন : ঠিক আসে ঠিক আসে , ঐটুক ভুল হইতেই পারে , আমি কোনো মাইন্ড করি নাই….
ফদ্দ : সইত্য , আফনের দিলটা কি বড় , এক্কেরে আফনের ফ্যাটের মত…..
খোকন : আরে না না , ফ্যাট তা আমার ওকেই আসে। ওই দুপুরে গোস্তটা বেশি খাই ফালাইসি তাই গ্যাসে ফুইল্লা গেসে গা …
ফদ্দ : বাজে কথা রাখেন , গোস্ত আমি আফনের থিক্যা বেশি খাইসি , কই আমার তো কিসু হয় নাই……
খোকন (রোমান্টিক ভাবে ) : ফদ্দ, তুমি হইলা গিয়া এক ইস্পেশাল কিছিমের মানুষ…..আল্লায় তোমায় বানাইসে ওই ছোনি কোম্পানির লেটেস্ট ল্যাপটপ দিয়া …
ফদ্দ : আর আফনেরে কি দিয়া বানাইসে ? সস্তার চাইনিজ মোবাইল দিয়া … হাঃ হাঃ হাঃ
খোকন : হাঃ হাঃ হাঃ এইডা তুমি জব্বর দিলা….ফদ্দ অন্ধকার হই গেসে, হালায় লুঙ্গির ভিতর দিয়া মশা ঢুইক্যা এদিক সেদিক কামর মারতাসে। চল ঘরে এচি তে গিয়া বসি ..
ফদ্দ : ওহ বুজছি, আফনের প্রেম জাগসে , মশার কামড় খাইয়া ওই 'এদিক সেদিক ' জায়গাগুলান আর নিজেরে ঠিক রাখতে পারতাসে না …
(রুমে প্রস্থান … বিছানায় একটা fluorescent কমলা রঙের নাইটি পড়ে ফদ্দ শুয়ে , খোকন আসমানী নিল রঙের লুঙ্গি আর খালি গা ..)
খোকন : তোমার এই ড্রেছটা দেখলেই আমি কেমন রোমান্টিক হইয়া যাই….
ফদ্দ : উঃ , তার কিসুক্ষন পরেই তো সেটারে টাইন্যা খুইল্লা ফালান …তখন আফনে একখান কুত্তা হই যান !
খোকন :শোইল কি আর মনের কথা বোঝে ডার্লিং ? সে শুধু বোঝে ধোনের ব্যথা ….হাঃ হাঃ হাঃ
ফদ্দ : ও মা রে , আবার শুরু করলো কুত্তাপানা ! আরে করেন কি …আস্তে উফ …ফারাম গেট থিক্যা কিনসি নাইটি টা , একটু টানলেই ফাইট্টা যাব গা।
(পুরো দমে ইন্টু সিন্টু চালু…খোকন আর ফদ্দ যখন ঠিক মাঝ inningsএ তখন হটাত )
খোকন : ফদ্দ ফাদ দিলা নাকি ?
ফদ্দ : এই যাঃ , কেমনে টের পাইলেন , গন্ধ তো নাই…
খোকন : আহা, আমার বিচি দুখান গরম বাতাসে দোলে যে ..
ফদ্দ : ইমা ছুরি (sorry), কিসু বোজনের আগেই আফনের চাপের গুতানিতে ভস কইরা বাইর হইয়া গেসে গা ….
খোকন : ঠিক আসে, ঠিক আসে….এসব কুদরতি ব্যাপার, আমি কোনো মাইন্ড করি নাই….
ফদ্দ : ওই যে কইলাম না , আফনের দিলটা কি বড় , এক্কেরে আফনের ধোনের মত…..
খোকন (রেগে গিয়ে ): আরে এই , আমি তুমারে হুর ,পরি এইগুলার লগে তুলনা করি আর তুমি খালি ফ্যাট, কুত্তা, ধোন….. এই সব কি লাগাইসো কি, হ্যাঁ?
ফদ্দ : বুড়া ভামরে কি আর কমু…..আফনে ছালমান খান , আফনে বরিছ ব্যাকার….কথায় কথায় ধোন দাড়াইয়া যায়…..যেন ফ্যাটের ভিতর ভায়গ্রার ফেক্টরী আসে !
খোকন (আরো রেগে গিয়ে ): হনিমূনে একটু এনজয় করতাসি , তা উনি দিলেন আমার বিচিতে নির্লজ্জের মত ফাইদ্যা ! এ কোন দেশের আদব, হ্যাঁ?
ফদ্দ : আফনে আর কুনোপ্রকার আমারে disturb দিবেন না। আমি আফনেরে কিন্তু এই লাস্ট ওরনিং দিতাসি। আন্ডা উনার কি ছেঞ্চেতিব রে ….ফাদের হাওয়ায় যেন ঝরি পরি গেল ….হুঃ।
ডিনার আর খেলো না কেউ , দুজনেই উল্টো দিকে মুখ করে শুয়ে পড়ল ।

প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য
  • 0.00 / 5 5
0 votes, 0.00 avg. rating (0% score)

Comments

comments