ক'দিন আগে ইউটিউবে একটি গানের ভিডিও খুঁজতে গিয়ে বাংলায় সার্চ করার প্রয়োজন হয়েছিল। গানটি ছিল "চ" দিয়ে শুরু। ইউটিউব সার্চ বারে "চ" অব্ধি লিখতেই সাজেশনগুলো দেখে অবাক হয়ে গেলাম। গোটা দশেক সাজেশনের মধ্যে একমাত্র "চিরদিনই তুমি যে আমার" বাদ দিয়ে বাকি সবই অশ্লীল শব্দ বিশেষ। ব্যাপারটা ইন্টারেস্টিং লাগায় বাংলা বর্ণমালার বিভিন্ন বর্ণ টাইপ করে সাজেশন গুলো দেখলাম এবং চক্ষু চড়কগাছ হল। গুগলের অটোমেটিক কাস্টমাইজড সার্চিং সম্পর্কে অবগত থাকায় প্রথমে একবার ভেবেছিলাম এ কি তবে আমার পানু-মার্কা সার্চ হিস্ট্রির ফল? যদিচ আমি এই ধরনের সার্চের ধারেকাছেও কখনও করিনি, তবু পাপী মন তো! :P

তারপরে ইউনিভার্সিটির একটা কম্প্যুটার থেকে গুগলে লগ ইন না করা অবস্থায় সার্চ করে দেখলুম। একই রকম রেজাল্ট পেয়ে বুঝলাম যে আমার "পাপের ফল" নয়, এগুলোই মোস্ট পপুলার সার্চ! নীচে এই সাজেশনের মধ্যে সবচেয়ে পপুলার রেজাল্ট গুলির একটা লিস্ট দিলাম, এ দিয়ে একখানা বর্ণপরিচয় লেখা হয়ে যাবে! 

ক – কলেজ ছাত্রী ধর্ষণ
খ – খানকি মাগি
গ – গোপন ভিডিও
ঘ – ঘেটুপুত্র কমলা
চ – চুদাচুদী
ছ – ছাত্রী ধর্ষণ
জ – জলের গান
ঝ – ঝড়
ট- টেক ওয়ান
ঠ – ঠাকুরমার ঝুলি
ড – ডাঃ জাকির নায়েক
ঢ – ঢাকা সেক্স
ত – তারকাঁটা
থ – থাবা বাবা
দ – দুধ টিপা
ধ – ধর্ষণ ভিডিও
ন – নগ্ন নারী
প – প্রিয়াঙ্কার যৌন ভিডিও
ফ – ফোন সেক্স
ব – বাংলাদেশি সেক্স
ভ – ভাবীর সাথে সেক্স
ম – মা ছেলের চুদাচুদী
য – যৌন মিলন
র – রবীন্দ্রসঙ্গীত
ল – লালনগীতি
শ – শবে বরাত
স – সেক্সি ভিডিও
হ – হস্তমৈথুন

বেশিরভাগ ক্ষেত্রে সাজেশনগুলো কেবল যৌন বিষয়ে তাই নয়, সেগুলো অধিকাংশ ক্ষেত্রেই পার্ভার্শনের দিকে ঝুঁকেছে। এটা কিছু পরিমাণে এক্সপেক্টেড, কিন্তু এতটাও হবে ভাবতে পারিনি। গুগলের সার্চ গুলি ইউনিভার্সাল নয়, জানেন আশা করি। স্থান কাল পাত্র সবকিছুর ওপরই নির্ভর করে। তাই আপনি এই এক্সপেরিমেন্টটি করলে একেবারে এক না হলেও একই ধরনের ফল পাবেন বলেই মনে হয়।

চন্দ্রিল ভট্টাচার্য একবার লিখেছিলেন "বাঙালী দুই প্রকার। অভদ্র সেক্স স্টার্ভড, আর ভদ্র সেক্স স্টার্ভড।" কথাটা খাঁটি সন্দেহ নেই। তবে এহেন পার্ভার্ট সার্চ কেবল বাঙালী বলে নয়, সারা পৃথিবীতেই বোধহয় হয়ে থাকে। গুগল ইংরেজী সার্চের ক্ষেত্রে নানা রকম সেন্সরিং ব্যবহার করে বলে এতটা চোখে পড়েনা। তবু বাঙালীদের (এবং অবাঙালী ভারতীয়দেরও) স্টার্ভেশন লেভেলটা পশ্চিমের তুলনায় অনেকটা বেশি বলেই বোধহয় পার্ভার্শন এর দিক থেকেও আমরা সাহেবদের টেক্কা দিতে পেরেছি।

এর ফাঁকে কিছু ইন্টারেস্টিং জিনিস চোখে পড়ল। রবীন্দ্রসঙ্গীত এবং লালনগীতি কে "র" এবং "ল" এর এক নম্বরে দেখে খানিক খুশি হয়েছিলাম। আরেকজন ব্যক্তি কিন্তু এই কিংবদন্তীদের গোল দিয়ে দিয়েছেন। "ড" এর বেশিরভাগ সাজেশনই ডাঃ জাকির নায়েক কে নিয়ে (এবং আমার ধারণা বেশিরভাগই পজিটিভ সার্চ, অর্থাৎ জাকির বাবুর সমর্থকদের)। এর থেকে বোঝা যায় এই রামছাগলকে (এটা ওনার চেহারার প্রতি কটুক্তি নয়, ওনার কুযুক্তি দেবার অসামান্য দক্ষতার কারণে বলা) আমরা যতই হ্যাটা মারিনা কেন, পপুলারিটির দিক থেকে উনি কিছু কম যান না। আর একজন ব্যক্তিই র‍্যাঙ্ক ওয়ানে আসতে পেরেছেন, তবে সেই থাবা বাবার সম্পর্কে সার্চগুলো বোধহয় বেশিরভাগই নেগেটিভ। 

 

 

বাজে সার্চ নিয়ে কিছু বাজে কথা
  • 0.00 / 5 5
0 votes, 0.00 avg. rating (0% score)

Comments

comments