এখানে সারা রাত কালচে বৃষ্টি ঝরে;
আমরাও প্রদীপ জ্বালিয়ে, শোকের মুখোমুখি বসে।
অনির্বাণ মহাকাল কথা দিয়ে গেছে
ভোলেনি সে কাউকে।
সময়ের তুনীরে গোঁজা আছে মৃত্যুবান।

গাঙ্গেয় প্রপাতে মুখ দেখে,
নিস্তব্ধতা ঢাকে অশনি সঙ্কেতে।
কৃষকের লাঙলে, পলি মৃত্তিকায় ফসল বাড়ে।
আর শহরের গায়ে জমে যায়
কবরের স্যাঁতস্যাঁতে আস্তরণ।

হরিৎ অবগাহনে, যে রজ:স্বলা ধরণী
গর্ভ ব্যথা পেরিয়ে আজ জগৎ জননী;
মুগ্ধ চোখে দেখে সে মেঘের হামাগুড়ি।
আকাশের বুক জুড়ে নকশিকাঁথা, জলছবি;
সোঁদা মাটির গন্ধে মেশে মৃগণাভি, চন্দন ঘ্রাণ।

হে নিষ্ঠুর সময়,
জন্মই যদি দিতে দিলে;
সন্তানবিয়োগে সেই নারীকে
শোকাতুরা নাই বা করলে আজ।

সারা রাত বৃষ্টি
  • 3.00 / 5 5
1 vote, 3.00 avg. rating (71% score)

Comments

comments