মফস্বলের বৃষ্টির একটা আলাদা বর্ণ গন্ধ আছে।
এটা সেদিনই বুঝেছিল ব​য়সন্ধির​ ছেলেটা..
মেয়েটার সাথে এক ছাতার তলাতে,
স্কুলের মাঠে ফুটবল ম্যাচ দেখতে দেখতে।
রক্তকণিকাগুলো সারা কাদামাঠ দাপিয়ে বেড়াচ্ছিলো, পাগলের মতো..

এখন শহরের হাইরাইজের কাঁচ-জানালার বাইরে সব বৃষ্টি একরকম লাগে..
হঠাৎ-পাওয়া বৃষ্টি-দিনেও কতকগুলো দুশ্চিন্তা ঠিক ঘাই মেরে ওঠে,
অস্তিত্ব জানান দেয়​।

স্থান​-সম​য়ের সাথে সাথে সবকিছুই পাল্টে যায়​,
এমনকি বৃষ্টিও।

এখনও একটা বাচ্চাছেলে গ্রামের কাঁচারাস্তায়​
মনের আনন্দে ভিজছে অবিরাম​।
দমকা ঝোড়ো হাওয়া উড়িয়ে দিল হাতের সবকিছু..
বেশ কয়েকবার আছাড় খেয়ে কাদা মাখল ইচ্ছে করেই,
মায়ের অবশ্যম্ভাবী বকুনির তোয়াক্কা না করে।
বৃষ্টি-কালো আকাশ মাঠ​
শরীরে মাখছে – ভালোবেসে..

নাটকের সব চরিত্র কাল্পনিক হলেও, দৃশ্যগুলো খুব সত্যি।

এলোমেলো দৃশ্যাবলী
  • 0.00 / 5 5
0 votes, 0.00 avg. rating (0% score)

Comments

comments